ডোমেইন এবং হোস্টিং কি ? কিভাবে কাজ করে থাকে – জেনে নিন A TO Z !

হোস্টিং (Hosting):

আসসালামু আলাইকুম, আজ আপনদের সাথে শেয়ার করবো হোস্টিং কি?
বেশির ভাগ লোকই ডোমেইন কি তা জানে . আপনি যদি একটি ডোমেইন কিনেন অবশ্যই তার জন্য একটি হোস্টিং কিনতে হবে। আপনি একটি ডোমেইন কিনলেন মানে ইন্টারনেটে আপনি একটি স্থান কিনলেন, এখন আপনার ডোমেইনটিকে ২৪/৭ অনলাইনে রাখতে হবে। এর জন্য দরকার আপনার হোস্টিং কোম্পানি। কোন তথ্যকে অন্যের কাছে তুলে ধরার সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সহজ মাধ্যম হচ্ছে ওয়েবসাইট। আজকের কম্পিউটার ব্যবহারকারী মাত্রই ওয়েবসাইট সম্পর্কে অবগত আছেন। সহজ ভাষায় বলা যায়, ওয়েবসাইট হল আপনার তথ্যকে অন্যের সামনে উপস্থাপন করার রাস্তা- সেটা টেক্সট বা মাল্টিমিডিয়া (যেমনঃ ছবি, অডিও বা ভিডিও) যে কোন ধরনের হতে পারে। ওয়েবসাইটে সেগুলো সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তোলা ওয়েব ডেভেলপারের কাজ। আর আপনার ওয়েবসাইটটি অন্যদের দেখার জন্য উপযোগী করাই ওয়েব হোস্টিং নামে পরিচিত ।
 
আপনার ওয়েবসাইটটিকে যদি তুলনা করা হয় আপনার প্রতিষ্ঠানের অফিস বিল্ডিং হিসাবে, তবে তার তথ্য বা কনটেন্ট হবে এর আসবাবপত্র। আর ওয়েবসাইট ডেভেলপ করাকে তুলনা করা যাবে বাড়িটি তৈরি করার সাথে। সেক্ষেত্রে ওয়েবসাইট হোস্টিংকে তুলনা করা যায় আপনার অফিস বিল্ডিংয়ের জন্য জায়গা কেনা এবং সে জায়গায় বাড়িটি তৈরি করার সাথে। তবেই ভিজিটররা ওয়েবসাইটি ব্যবহার করার সুযোগ পাবে। কোন ওয়েব সাইট যে জায়গা জুরে থাকবে সেটাই ওই সাইটের হোস্টিং। আমরা দেখি যেকোন ওয়েব সাইট কিছু টেক্সট এবং মাল্টিমিডিয়া (Picture / Video) দিয়ে তৈরি হয়ে থাকে। এই গুলা যে জায়গা বা BIT দখল করে তাকে ওই সাইটের হোস্টিং বলে। তবে সব থেকে ভাল হয় Domain and Hosting উদাহরন দিয়ে বোঝান যায়।
ধরুন…
1/ আপনার একটি বাড়ি আছে।
2/ বাড়িটি ১ একর জমির উপর আছে।
3/ বাড়িটি ঠিকানা 500/5 ধানমন্ডি, ঢাকা।
ওয়েবসাইটের ক্ষেত্রে বলতে গলে
১-আপনার বাড়ি টায় আপনার সাইটের কনটেন্ট
২-বাড়ির জমি হচ্ছে আপনার ওয়েব সাইটের হোস্টিং
৩-বাড়ির ঠিকানা হল ওয়েব সাইটের ডোমেইন
হেস্টিং কয়েক ধরনের হতে পারে যেমন: Shared Hosting, Dedicated Hosting, Vertual Private Server ইত্যাদি,

ডোমেইন (Domain):

অনেকেরই মনে প্রশ্ন আছে “ডোমেইন কি ?” এবং কে প্রথম ডোমেইন নাম রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন? এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চাই। তো যারা ইন্টারনেট জগতে নতুন কিংবা প্রশ্ন করে থাকেন “ডোমেইন কি ?” এবং কে প্রথম ডোমেইন নাম রেজিস্ট্রেশন করেছিলেন? আজকে তাদের জন্য একটা বিস্তারিত পোস্ট দিলাম। আশা করছি পোস্টটি পড়ার পর ডোমেইন সম্পর্কে আপনার যত প্রশ্ন আছে তা সহজেই পরিস্কার হয়ে যাবে।

এবার আলোচনাই আসি, ডোমেইন (Domain) একটি ইংরেজি শব্দ  এর বাংলা অর্থ হলো স্থান বা ঠিকানা যা ইন্টারনেট জগতে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। মূলত, ডোমেইন নাম বলতে সাধারনভাবে কোন একটা ওয়েবসাইটের নামকে বোঝায়।

ধরুন, আপনি একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করলেন এবং একটি সুন্দর ও ইউনিক নাম দিলেন যাতে করে মানুষ সহজেই বুঝতে পারে আপনি কি ধরনের সেবা দিতে চাচ্ছেন। পরবর্তীতে মানুষজন যখন আপনার সেবা নিতে যাবে তখন আপনার দেওয়া নামের মাধ্যমে সহেজেই আপনার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কে খুজে পাবে । উদাহরণ স্বরূপ বলা যায়ঃ — প্রথমআলো, প্রান, RFL, তীর, যমুনা, বসুন্ধরা এর কথা। এগুলো মূলত এক একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এর নাম যা দেখে আমরা সহজেই বুঝতে পারি তারা কি ধরনের সেবা দিয়ে থাকে এবং কিভাবে মানুষজন তাদের ঠিকানা সহজেই খুঁজে পায়।

ঠিক যে নামের মাধ্যমে আপনার পছন্দের ওয়েবসাইটটি মানুষ জন খুজে পাবে সেটাই হলো ডোমেইন। এই ডোমেইন নামই আপনার ওয়েবসাইটকে অনন্যভাবে আইডেন্টিফাই করবে এবং সেই সাথে সবাই এ নাম ব্যবহার করে আপনার ওয়েবসাইটটিকে চিনবে এবং একসেস করবে ।

প্রত্যেক ওয়েবসাইটের একটি নির্দিষ্ট আইপি অ্যাড্রেস (IP Address) থাকে। যেমনঃ 66.220.159.255. সাধারণত আইপি অ্যাড্রেস দিয়ে ওয়েবসাইট মনে রাখা কষ্টসাধ্য। তাই মনে রাখার সুবিধার জন্য আইপি অ্যাড্রেসের পরিবর্তে ডোমেইন নাম ব্যবহার করা হয়। এছাড়া এক বা একাধিক কম্পিউটার কে ইন্টারনেট এ চেনার জন্যও ডোমেইন নাম ব্যবহার করা হয়।

যেভাবে হোস্টিং কাজ করে থাকে

যখন কেউ আপনার ওয়েবসাইটের ডোমেইনটি ব্রাউজারে লিখে ইন্টারনেটে সার্চ করবে তখন ডোমেইন নামটি IP Address এ রূপান্তরিত হয়ে ওয়েব হোস্টিং কোম্পানির কম্পিউটারে নিয়ে যাবে মূলত যেখানে আপনার  ওয়েবসাইটের Content, Images, Videos, এবং বিভিন্ন ফাইলগুলো জমা করে রাখা হয়েছে। সেখান থেকে জমা করা ফাইলগুলো তৎক্ষণিক ভাবে ভিজিটর বা ইউজারের ব্রাউজারে পাঠানো হয়। তারপর ইউজার সেই ওয়েবসাইট টি দেখতে পান। এভাবেই মুলত ওয়েব হোস্টিং কাজ করে থাকে।

Facebook Comments